সওগাত/ Saugaat /The Gift

পুজোর পরব কাছে। ভাণ্ডার নানা সামগ্রীতে ভরা। কত বেনারসি কাপড়, কত সোনার অলংকার; আর ভাণ্ড ভ’রে ক্ষীর দই, পাত্র ভ’রে মিষ্টান্ন।

মা সওগাত পাঠাচ্ছেন।

বড়োছেলে বিদেশে রাজসরকারে কাজ করে; মেজোছেলে সওদাগর, ঘরে থাকে না; আর-কয়টি ছেলে ভাইয়ে ভাইয়ে ঝগড়া ক’রে পৃথক পৃথক বাড়ি করেছে; কুটুম্বরা আছে দেশে বিদেশে ছড়িয়ে।

কোলের ছেলেটি সদর দরজায় দাঁড়িয়ে সারা দিন ধরে দেখছে, ভারে ভারে সওগাত চলেছে, সারে সারে দাসদাসী, থালাগুলি রঙবেরঙের রুমালে ঢাকা।

দিন ফুরোল। সওগাত সব চলে গেল। দিনের শেষনৈবেদ্যের সোনার ডালি নিয়ে সূর্যাস্তের শেষ আভা নক্ষত্রলোকের পথে নিরুদ্দেশ হল।

ছেলে ঘরে ফিরে এসে মাকে বললে, “মা, সবাইকে তুই সওগাত দিলি, কেবল আমাকে না।”

মা হেসে বললেন, “সবাইকে সব দেওয়া হয়ে গেছে, এখন তোর জন্যে কী বাকি রইল এই দেখ্‌।”

এই বলে তার কপালে চুম্বন করলেন।

ছেলে কাঁদোকাঁদো সুরে বললে, “সওগাত পাব না? ”

“যখন দূরে যাবি তখন সওগাত পাবি।”

“আর, যখন কাছে থাকি তখন তোর হাতের জিনিস দিবি নে? ”

মা তাকে দু হাত বাড়িয়ে কোলে নিলেন; বললেন, “এই তো আমার হাতের জিনিস।”

The Gift

The festive season was nearing. The storerooms were full of gifts – fabrics woven with gold thread, golden ornaments, sweetmeats and much more.  The mother was preparing to send these away to the eldest son who worked in another country, and to his brother who was a merchant and was always travelling in other lands. Gifts were also going to the sons who, having quarreled with each other, had moved to live in separate houses, even to the kinsfolk who lived in other lands, both near and far.

The youngest child stood at the door watching all day, as maids carried away trays of gifts covered with colorful  cloth.

At the end of the day when the last tray was sent off, the sun spread a golden sheen on the day before setting off on its own celestial journey.

The child entered the house and said to his mother,’You gave gifts to every one but me.’

His mother smiled and said,’All the gifts are gone, look at what I have left!’

She then kissed his forehead.

The tearful child said,’Will I not get a gift?’

‘You will, when you go away.’

‘So, you will give me nothing of your own while I am with you?’

His mother reached for him with her arms and said,’This is what is my own!’

From Lipika

Ruma

January 26, 2012