রাজার ছেলে ও রাজার মেয়ে, সোনার তরী/The Prince and Princess, Sonar Toree, The Golden Boat

রাজার ছেলে ও রাজার মেয়ে

রূপকথা
প্রভাতে
রাজার ছেলে যেত পাঠশালায়,
রাজার মেয়ে যেত তথা।
দুজনে দেখা হত পথের মাঝে,
কে জানে কবেকার কথা।
রাজার মেয়ে দূরে সরে যেত,
চুলের ফুল তার পড়ে যেত,
রাজার ছেলে এসে তুলে দিত
ফুলের সাথে বনলতা।
রাজার ছেলে যেত পাঠশালায়,
রাজার মেয়ে যেত তথা।
পথের দুই পাশে ফুটেছে ফুল,
পাখিরা গান গাহে গাছে।
রাজার মেয়ে আগে এগিয়ে চলে,
রাজার ছেলে যায় পাছে।

মধ্যাহ্নে
উপরে বসে পড়ে রাজার মেয়ে,
রাজার ছেলে নীচে বসে।
পুঁথি খুলিয়া শেখে কত কী ভাষা,
খড়ি পাতিয়া আঁক কষে।
রাজার মেয়ে পড়া যায় ভুলে,
পুঁথিটি হাত হতে পড়ে খুলে,
রাজার ছেলে এসে দেয় তুলে,
আবার পড়ে যায় খসে।
উপরে বসে পড়ে রাজার মেয়ে,
রাজার ছেলে নীচে বসে।
দুপুরে খরতাপ, বকুলশাখে
কোকিল কুহু কুহরিছে।
রাজার ছেলে চায় উপর-পানে,
রাজার মেয়ে চায় নীচে।

সায়াহ্নে
রাজার ছেলে ঘরে ফিরিয়া আসে,
রাজার মেয়ে যায় ঘরে।
খুলিয়া গলা হতে মোতির মালা
রাজার মেয়ে খেলা করে।
পথে সে মালাখানি গেল ভুলে,
রাজার ছেলে সেটি নিল তুলে,
আপন মণিহার মনোভুলে
দিল সে বালিকার করে।
রাজার ছেলে ঘরে ফিরিয়া এল,
রাজার মেয়ে গেল ঘরে।
শ্রান্ত রবি ধীরে অস্ত যায়
নদীর তীরে একশেষে।
সাঙ্গ হয়ে গেল দোঁহার পাঠ,
যে যার গেল নিজ দেশে।

নিশীথে
রাজার মেয়ে শোয় সোনার খাটে,
স্বপনে দেখে রূপরাশি।
রুপোর খাটে শুয়ে রাজার ছেলে
দেখিছে কার সুধা-হাসি।
করিছে আনাগোনা সুখ-দুখ,
কখনো দুরু দুরু করে বুক,
অধরে কভু কাঁপে হাসিটুক,
নয়ন কভু যায় ভাসি।
রাজার মেয়ে কার দেখিছে মুখ,
রাজার ছেলে কার হাসি।
বাদর ঝর ঝর, গরজে মেঘ,
পবন করে মাতামাতি।
শিথানে মাথা রাখি বিথান বেশ,
স্বপনে কেটে যায় রাতি।

চৈত্র ১২৯৮ জোড়াসাঁকো। কলিকাতা

tarore_video_08-746253

(The inner verandahs at Jorasanko, the poet’s home)

***************

A prince and a princess
In a fairy tale

In the morning
The prince would go to school
The princess went there as well.
The two met perchance on the road
Who knows when this happened for the very first time!
The princess would shy away
Flowers falling from her sweeping hair,
The prince would pick them up for her again,
Returning blossom to a flowering vine.
The prince used to go to school
The princess went there as well.
A hundred flowers bloomed by the sides of the road
The birds sang sweetly out of each tree
The princess would walk a few steps ahead
The prince would follow in her wake.

2
At noon
The princess would read as she sat on high,
The prince would sit upon the ground.
They learned so many words from their books
They practiced their numbers on slate tablets too.
The princess would forget certain things she had read
Abandoned, her book would fall to the floor.
The prince gave it back to her,
Only to find it dropped again.
The princess would read as she sat on high,
The prince would sit upon the ground
In the midday heat, upon the mimosa boughs,
The cuckoo would sing its plaintive song.
The prince would look up at the bird,
While the princess cast her eyes down to the ground.

3
In the evening
The prince comes home
The princess returns too.
She undoes her necklace of precious stones
To play with the beads,
But she loses it on her way back home
The prince picks it up
But gives her back his necklace
Perhaps in a youthful comedy of errors
Now he is home,
She too has returned.
And so the weary sun may slowly end his day
Sinking into the river bank far away.
The two are done with their studies,
Each back in their own home.

4
At night
The princess sleeps upon a bed of pure gold,
In her dreams she sees many a treasure
The prince is asleep on his silver couch
In his dreams he sees many a smile sweet
Happiness and sorrow chase each other about,
Sometimes his heart fills with fear,
Soon to change to a smile that sits lightly on the lips.
Then glitter sudden uninvited tears.
Whose dear face does the princess see?
Whose smiles shine in the prince’s dreams?
The rains fall ceaseless, the sky rings with thunder,
The wind grows stronger with each peal.
Head upon pillow, clothes in sweet disarray,
The night passes in delightful dreams.

Written at Jorasanko, Chaitra 1298 Bongabdo(Bengali calender)

Image from: http://calcutta-kolkata-asim.blogspot.com.au/2011/05/josasanko-thakurbari.html