বলাকা ৪/Bolaka 4

তোমার শঙ্খ ধুলায় প’ড়ে,
কেমন করে সইব।
বাতাস আলো গেল মরে
এ কী রে দুর্দৈব।
লড়বি কে আয় ধ্বজা বেয়ে,
গান আছে যার ওঠ-না গেয়ে,
চলবি যারা চল্‌ রে ধেয়ে,
আয় না রে নিঃশঙ্ক।
ধুলয় পড়ে রইল চেয়ে
ওই যে অভয় শঙ্খ।

চলেছিলাম পূজার ঘরে
সাজিয়ে ফুলের অর্ঘ্য।
খুঁজি সারাদিনের পরে
কোথায় শান্তি-শর্গ।
এবার আমার হৃদয়-ক্ষত
ভেবেছিলাম হবে গত,
ধুয়ে মলিন চিহ্ন যত
হব নিষ্কলঙ্ক।
পথে দেখি ধুলায় নত
তোমার মহাশঙ্খ।

আরতি-দীপ এই কি জ্বালা।
এই কি আমার সন্ধ্যা।
গাঁথার রক্তজবার মালা?
হায় রজনীগন্ধা।
ভেবেছিলাম যোঝাযুঝি
মিটিয়ে পাব বিরাম খুঁজি,
চুকিয়ে দিয়ে ঋণের পুঁজি,
লব তোমার অঙ্ক।
হেনকালে ডাকল বুঝি
নীরব তব শঙ্খ।

যৌবনেরি পরশমণি
করাও তবে স্পর্শ।
দীপক-তানে উঠুক ধ্বনি
দীপ্ত প্রাণের হর্ষ।
নিশার বক্ষ বিদায় করে
উদ্‌বোধনে গগন ভরে
অন্ধ দিকে দিগন্তরে
জাগাও-না আতঙ্ক।
দুই হাতে আজ তুলব ধরে
তোমার জয়শঙ্খ।

জানি জানি তন্দ্রা মম
রইবে না আর চক্ষে।
জানি শ্রাবণধারা-সম
বাণ বাজিয়ে বক্ষে।
কেউ বা ছুটে আসবে পাশে,
কাঁদবে বা কেউ দীর্ঘশ্বাসে,
দুঃস্বপনে কাঁপবে ত্রাসে
সুপ্তির পর্যঙ্ক।
বাজবে যে আজ মহোল্লাসে
তোমার মহাশঙ্খ।

তোমার কাছে আরাম চেয়ে
পেলাম শুধু লজ্জা।
এবার সকল অঙ্গ ছেয়ে
পরাও রণসজ্জা।
ব্যাঘাত আসুক নব নব,
আঘাত খেয়ে অটল রব,
বক্ষে আমার দুঃখে তব
বাজবে জয়ডঙ্ক।
দেব সকল শক্তি, লব
অভয় তব শঙ্খ।

রামগড়, ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৩২১

**

There lies your conch shell in the dust,
How am I supposed to bear it?
The light and air have grown stale
What kind of destiny is this?
Come who will, carrying the flag,
Come, lend your voice to this song,
Come who will, on winged feet,
Come along, those of you without fear.
Look there lies forsaken
upon the dust, the conch shell of peace.

I was going to offer my prayers
With flowers arranged as my gift
I wish to find at the end of the day
Somewhere a haven of peace.
This time the wounds that bleed within
I had hoped to heal,
And wash away all signs of wear
I would become renewed and clean.
But what should I see cast upon the dust
But your great conch shell of peace.

Is this how one lights the flame of sacrifice?
Is this how the day must end for me?
Will all the flowers be turned blood red?
Alas the flowers of purity and youth.
I had thought that all the wars
Were finally over for me,
And all my debts paid to this life,
Now I would finally be with you.
And yet I find I am called to war
By the silence of your conch.

With the touch of youth
Then bring me to life.
Set aflame my spirits
In joyous response to your call.
Drive away the darkness
Awaken the skies
In every unseeing direction
With a hint of the horrors to come.
I will lift with my hands
Your conch shell of victory.

I know I have been asleep
But that will be no more.
I know that like the blinding rain
The weapons will ring within
Some come racing, eager to join
Some beat their breasts with sighs,
Nightmares will shake
Those asleep in bed.
For today once again we sound
Your great conch shell in battle.

You looked upon me in pity
When I begged for respite
Now I will have nothing less
Than you dressing me in your armour bright.
Let there come whatever may,
I will not budge from my stand,
For your pain will strike in me
The victory drums in delight
I will give all that I can
In return I claim for my own
Your conch shell of peace that lay upon the dust.

Ramgarh, 1914/1915