সাঁওতাল মেয়ে/Shaontal Meye/The Santhal Girl

সাঁওতাল মেয়ে

 

যায় আসে সাঁওতাল মেয়ে

শিমূলগাছের তলে কাঁকরবিছানো পথ বেয়ে।

মোটা শাড়ি আঁট করে ঘিরে আছে তনু কালো দেহ।

বিধাতার ভোলা-মন কারিগর কেহ

কোন্‌ কালো পাখিটিরে গড়িতে গড়িতে

শ্রাবণের মেঘে ও তড়িতে

উপাদান খুঁজি

ওই নারী রচিয়াছে বুঝি।

ওর দুটি পাখা

ভিতরে অদৃশ্য আছে ঢাকা,

লঘু পায়ে মিলে গেছে চলা আর ওড়া।

নিটোল দু হাতে তার সাদারাঙা কয় জোড়া

গালা-ঢালা চুড়ি,

মাথায় মাটিতে-ভরা ঝুড়ি,

যাওয়া-আসা করে বারবার।

আঁচলে প্রান্ত তার

লাল রেখা দুলাইয়া

পলাশের স্পর্শমায়া আকাশেতে দেয় বুলাইয়া।

পউষের পালা হল শেষ,

উত্তর বাতাসে লাগে দক্ষিণের ক্বচিৎ আবেশ।

হিমঝুরি শাখা-‘পরে

চিকন চঞ্চল পাতা ঝলমল করে

শীতের রোদ্‌দুরে।

পাণ্ডুনীল আকাশেতে চিল উড়ে যায় বহুদূরে।

আমলকীলতা ছেয়ে খসে পড়ে ফল,

জোটে সেথা ছেলেদের দল।

আঁকাবাঁকা বনপথে আলোছায়া-গাঁথা,

অকস্মাৎ ঘুরে ঘুরে ওড়ে ঝরা পাতা

সচকিত হাওয়ার খেয়ালে।

ঝোপের আড়ালে

গলাফোলা গিরগিটি স্তব্ধ আছে ঘাসে।

ঝুড়ি নিয়ে বারবার সাঁওতাল মেয়ে যায় আসে।

আমার মাটির ঘরখানা

আরম্ভ হয়েছে গড়া, মজুর জুটেছে তার নানা।

ধীরে ধীরে ভিত তোলে গেঁথে

রৌদ্রে পিঠ পেতে।

মাঝে মাঝে

সুদূরে রেলের বাঁশি বাজে;

প্রহর চলিয়া যায়, বেলা পড়ে আসে,

ঢং ঢং ঘন্টাধ্বনি জেগে ওঠে দিগন্ত-আকাশে।

আমি দেখি চেয়ে,

ঈষৎ সংকোচে ভাবি–এ কিশোরী মেয়ে

পল্লীকোণে যে ঘরের তরে

করিয়াছে প্রস্ফুটিত দেহে ও অন্তরে

নারীর সহজ শক্তি আত্মনিবেদনপরা

শুশ্রূষার স্নিগ্ধসুধা-ভরা,

আমি তারে লাগিয়েছি কেনা কাজে করিতে মজুরি–

মূল্যে যার অসম্মান সেই শক্তি করি চুরি

পয়সার দিয়ে সিঁধকাঠি।

সাঁওতাল মেয়ে ওই ঝুড়ি ভরে নিয়ে আসে মাটি।
শান্তিনিকেতন, ৪ মাঘ, ১৩৪১

santhal_girl 1
(Santhal Girl by DebiProsad Roy Chowdhury)

THE SANTHAL GIRL

 

The Santhal girl comes and goes

Along the pebbled path under the silk cotton trees.

A coarse saree wrapped tight around her slim dark form.

Some forgetful maker at the dawn of time

In the midst of making a black bird

From rain darkened cloud and lightning

Suddenly found the clay

That this woman was fashioned from.

Her two wings he hid

Away from the world within her soul

On quick feet she seems to fly as she walks .

On her perfect arms she wears a few white

Lacquered bangles,

Atop her head a basket filled with mud,

She comes and goes again and again.

The end of her saree

Skimmed by red

Paints the sky with the delicate touch of palash

The month of Poush draws to a close,

The north wind seems to whisper a message from the south.

Upon the branches of the Himjhuri

Young green leaves glimmering with life

In winter’s golden sunshine.

A kite flies far away in the pale blue sky.

The amla vine sheds its cloak of fruit,

Around it children gathering in hope.

The winding forest paths skeined in light and shade,

Where dry leaves eddy in sudden swirls

On the whim of the startled wind.

While in the bushes stealthily

A lizard in silence waits under cover of grass.

The Santhal woman comes and goes again and again.

My mud brick home

Is slowly taking shape, workers fill the place

A little at a time they raise the walls

Their backs bared to the sun

Every now and then

The trains can be heard whistling afar;

The hours pass, the day draws to an end,

A bell rings where sky meets land

I sit and watch,

Hesitant my thoughts as I muse – this young girl

Who has for her own sake

Blossomed forth in body and soul

That easy feminine strength best expressed in the giving of herself

Tempered with the sweet serenity of compassion,

I have employed her, paying her for work –

Stealing the very strength that suffers insult at being priced

Using money to break her down

There she comes again, the Santhal girl, her basket filled with clay.

 

 

Santiniketan, 18th January 1935

Santhal 2
(Santhal Woman, Jamini Roy)

Images: Internet.