Tag Archive | Shishu Bholanath

Mone Pora/মনে পড়া/ Mother, remembering you

মনে পড়া

মাকে আমার পড়ে না মনে।
শুধু কখন খেলতে গিয়ে
হঠাৎ অকারণে
একটা কী সুর গুনগুনিয়ে
কানে আমার বাজে,
মায়ের কথা মিলায় যেন
আমার খেলার মাঝে।
মা বুঝি গান গাইত, আমার
দোলনা ঠেলে ঠেলে;
মা গিয়েছে, যেতে যেতে
গানটি গেছে ফেলে।
মাকে আমার পড়ে না মনে।
শুধু যখন আশ্বিনেতে
ভোরে শিউলিবনে
শিশির-ভেজা হাওয়া বেয়ে
ফুলের গন্ধ আসে,
তখন কেন মায়ের কথা
আমার মনে ভাসে?
কবে বুঝি আনত মা সেই
ফুলের সাজি বয়ে,
পুজোর গন্ধ আসে যে তাই
মায়ের গন্ধ হয়ে।
মাকে আমার পড়ে না মনে।
শুধু যখন বসি গিয়ে
শোবার ঘরের কোণে;
জানলা থেকে তাকাই দূরে
নীল আকাশের দিকে
মনে হয়, মা আমার পানে
চাইছে অনিমিখে।
কোলের ‘পরে ধরে কবে
দেখত আমায় চেয়ে,
সেই চাউনি রেখে গেছে
সারা আকাশ ছেয়ে।

৯ আশ্বিন, ১৩২৮

jamini-roy-painting-mother-and-child-PA09_l

Mother, remembering you

I cannot remember my mother,
Only sometimes as I play
Out of nowhere and without reason
A tune comes across time
To tinkle in my ear
And I feel my mother must speak to me
As I sit and play.
I suppose my mother must have sung to me
As she rocked me in my cradle
But when she left on fading footsteps
She left her songs behind.
I cannot remember my mother
Only in the month of Ashwin
When from the shiuli groves at dawn,
The dew laden breeze brings
The scents of the flowers to me,
Why do I suddenly think
Of that loving long lost presence?
She must have once gathered blooms
As offerings in a little basket
That is why the festive season still smells
Like my mother once did.
I cannot remember my mother
But still when I sit alone
In the corner of my room
And I look through the window
At the blue skies far away
It seems I can sense my mother
Looking back at me in one unbroken gaze.
Perhaps once, in that distant past
She used to look at me in her lap
Today that same love surrounds me
As I look at the skies above.

24th September, 1921

Image: http://www.dollsofindia.com/product/folk-art-paintings/jamini-roy-painting-mother-and-child

Advertisements

বাউল/Baul/The Baul

বাউল

দূরে অশথতলায়
পুঁতির কণ্ঠিখানি গলায়
বাউল দাঁড়িয়ে কেন আছ?
সামনে আঙিনাতে
তোমার একতারাটি হাতে
তুমি সুর লাগিয়ে নাচ!

পথে করতে খেলা
আমার কখন হল বেলা
আমায় শাস্তি দিল তাই।
ইচ্ছে হোথায় নাবি
কিন্তু ঘরে বন্ধ চাবি
আমার বেরোতে পথ নাই।

বাড়ি ফেরার তরে
তোমায় কেউ না তাড়া করে
তোমার নাই কোনো পাঠশালা।
সমস্ত দিন কাটে
তোমার পথে ঘাটে মাঠে
তোমার ঘরেতে নেই তালা।

তাই তো তোমার নাচে
আমার প্রাণ যেন ভাই বাঁচে,
আমার মন যেন পায় ছুটি,
ওগো তোমার নাচে
যেন ঢেউয়ের দোলা আছে,
ঝড়ে গাছের লুটোপুটি।
অনেক দূরের দেশ
আমার চোখে লাগায় রেশ,
যখন তোমায় দেখি পথে।
দেখতে পায় যে মন
যেন নাম-না-জানা বন
কোন্‌ পথহারা পর্বতে।
হঠাৎ মনে লাগে,
যেন অনেক দিনের আগে,
আমি অমনি ছিলেম ছাড়া।
সেদিন গেল ছেড়ে,
আমার পথ নিল কে কেড়ে,
আমার হারাল একতারা।
কে নিল গো টেনে,
আমায় পাঠশালাতে এনে,
আমার এল গুরুমশায়।
মন সদা যার চলে
যত ঘরছাড়াদের দলে
তারে ঘরে কেন বসায়?
কও তো আমায়, ভাই,
তোমার গুরুমশায় নাই?
আমি যখন দেখি ভেবে
বুঝতে পারি খাঁটি,
তোমার বুকের একতারাটি,
তোমায় ঐ তো পড়া দেবে।
তোমার কানে কানে
ওরি গুনগুনানি গানে
তোমায় কোন্‌ কথা যে কয়!
সব কি তুমি বোঝ?
তারি মানে যেন খোঁজ
কেবল ফিরে’ ভুবনময়।
ওরি কাছে বুঝি
আছে তোমার নাচের পুঁজি,
তোমার খেপা পায়ের ছুটি?
ওরি সুরের বোলে
তোমার গলার মালা দোলে,
তোমার দোলে মাথার ঝুঁটি।
মন যে আমার পালায়
তোমার একতারা-পাঠশালায়,
আমায় ভুলিয়ে দিতে পার?
নেবে আমায় সাথে?
এ-সব পণ্ডিতেরি হাতে
আমায় কেন সবাই মার?
ভুলিয়ে দিয়ে পড়া
আমায় শেখাও সুরে-গড়া
তোমার তালা-ভাঙার পাঠ।
আর কিছু না চাই,
যেন আকাশখানা পাই,
আর পালিয়ে যাবার মাঠ।
দূরে কেন আছ?
দ্বারের আগল ধরে নাচ,
বাউল আমারি এইখানে।
সমস্ত দিন ধরে
যেন মাতন ওঠে ভরে
তোমার ভাঙন-লাগা গানে।

dancing-baul

The Baul

There, under the sacred tree
Wearing a necklace of beads
Baul, whom do you wait for?
In this courtyard of ours
With your one stringed ektara
You can sing and dance some more.

As I played on the way
I forgot the time
They all punished me for that.
I want to be there
But someone locked the door
Now I cannot escape my fate.

I do not suppose anyone
Tells you to hurry home
You don’t ever go to school.
All day long
You wander where you want
You are no home bound fool.

And that is why in your steps
My soul finds boundless skies
And my heart sings in delight.
I find the waves calling me
And the trees swayed by storms
In your movements wild.

Tales of distant lands
Come to life before my eyes,
When I see you on the road.
My mind sees with its eye
Forests where I have never gone
And a distant hilly abode.

Suddenly it seems
That a long time ago
I too was free.
Those times are no more
Someone took my wings away
And stole my song from me.

Who brought me here
And made me settle down
To learn from a thick tome.
Why make one so restless
Who calls himself homeless
Try to stay at home?

Can you tell me brother,
Do you not have a teacher?
When to this I pay heed
I am very certain indeed
That ektara you carry
Has all the words that you need

In your ears all day
In its magical tunes
What does it tell you about?
Do you understand it all?
Or is that why you wander
Within your heart and without.

Is that where you store
The steps that you dance to
And rest for your ever moving feet?
That is the same tune
To which your beaded necklace swings
Making your hair blow in the wind.

My mind wants to vanish
And sing the words you speak
Could I unlearn all this forever?
Will you take me with you?
All these men of learning
Why do they make me suffer?

Make me forget my lessons
And teach me the song
That unlocks all doors.
I want nothing too precious
But an azure blue sky
And endless fields, no more.

Why stand so far away?
Come and dance by my door
So that I may sing along.
All day and night
May my soul rejoice
To the maddening beat of your song.

Follow the links to hear Baul songs from Debdas Baul

Debdas Baul: http://youtu.be/jJj9B2g61-c