Archive | April 2012

গান্ধারীর আবেদন/Gandharir Abedon/Gandhari’s Supplication

দুর্যোধন ।

নিন্দা! আর নাহি ডরি ,
নিন্দারে করিব ধ্বংস কণ্ঠরুদ্ধ করি ।
নিস্তব্ধ করিয়া দিব মুখরা নগরী
স্পর্ধিত রসনা তার দৃঢ়বলে চাপি
মোর পাদপীঠতলে । “ দুর্যোধন পাপী ”
“ দুর্যোধন ক্রূরমনা ” “ দুর্যোধন হীন ”
নিরুত্তরে শুনিয়া এসেছি এতদিন ,
রাজদণ্ড স্পর্শ করি কহি মহারাজ ,
আপামর জনে আমি কহাইব আজ —
“ দুর্যোধন রাজা , দুর্যোধন নাহি সহে
রাজনিন্দা-আলোচনা , দুর্যোধন বহে
নিজ হস্তে নিজ নাম । ”

ধৃতরাষ্ট্র ।

ওরে বৎস , শোন্‌ ,
নিন্দারে রসনা হতে দিলে নির্বাসন
নিম্নমুখে অন্তরের গূঢ় অন্ধকারে
গভীর জটিল মূল সুদূরে প্রসারে ,
নিত্য বিষতিক্ত করি রাখে চিত্ততল ।
রসনায় নৃত্য করি চপল চঞ্চল
নিন্দা শ্রান্ত হয়ে পড়ে ; দিয়ো না তাহারে
নিঃশব্দে আপন শক্তি বৃদ্ধি করিবারে
গোপন হৃদয়দুর্গে । প্রীতিমন্ত্রবলে
শান্ত করো , বন্দী করো নিন্দাসর্পদলে
বংশীরবে হাস্যমুখে ।

দুর্যোধন ।

অব্যক্ত নিন্দায়
কোনো ক্ষতি নাহি করে রাজমর্যাদায় ;
ভ্রূক্ষেপ না করি তাহে । প্রীতি নাহি পাই
তাহে খেদ নাহি , কিন্তু স্পর্ধা নাহি চাই
মহারাজ! প্রীতিদান স্বেচ্ছার অধীন ,
প্রীতিভিক্ষা দিয়ে থাকে দীনতম দীন —
সে প্রীতি বিলাক তারা পালিত মার্জারে ,
দ্বারের কুক্কুরে , আর পাণ্ডবভ্রাতারে —
তাহে মোর নাহি কাজ । আমি চাহি ভয় ,
সেই মোর রাজপ্রাপ্য — আমি চাহি জয়
দর্পিতের দর্প নাশি ।

Duryodhan:

Condemnation! No longer do I fear it,
I will suffocate all condemnation.
I will silence this clamorous city
Crush its tongue and its audacity
Underfoot; “Duryodhan the sinner!”
“Duryodhan connives!”, “Duryodhan the low!”
Long have I heard this without uttering a word,
Today I pledge by this sceptre of mine, Oh King,
I will make them say this instead –
“Duryodhan is king, Duryodhan does not suffer
Criticism,discussion, Duryodhan forges
His fate with his own hands!

Dhritarashtra:

Son, hear me,
To banish criticism from the tongues of people,
Is to ensure that it spreads
Its roots, in the darkness of people’s minds.
It poisons them daily.
Allowing it to spend itself in effusive speech
Exhausts criticism; do not allow it
To build its strength in silence enforced
In the secret fortresses of the soul.
With the promise of love, calm it
Imprison it, charm the snake of protest
With the flute song of smiling deceit.

Duryodhan:

Unexpressed condemnation
Does nothing to the honour of a king;
I do not fear that. I do not care
That I am not loved, but audacity is unwelcome
Oh King! Love is voluntary,
Even the poorest can gift love –
Let them give that love freely to tame cats,
To stray dogs at their door, and to the Pandavas –
I do not need that love. I shall be feared
That is my right as ruler, as king.
I demand victory, by destroying any pride
felt by those who deserve it.

picture taken from: http://tinyurl.com/7tupem7

Advertisements

যে ছায়ারে ধরব বলে করেছিলেম পণ/Your fleeting shadow

যে ছায়ারে ধরব বলে করেছিলেম পণ
আজ সে মেনে নিল আমার গানেরই বন্ধন ॥
আকাশে যার পরশ মিলায় শরতমেঘের ক্ষণিক লীলায়
আপন সুরে আজ শুনি তার নূপুরগুঞ্জন ॥
অলস দিনের হাওয়ায়
গন্ধখানি মেলে যেত গোপন আসা-যাওয়ায় ।
আজ শরতের ছায়ানটে মোর রাগিণীর মিলন ঘটে,
সেই মিলনের তালে তালে বাজায় সে কঙ্কণ ॥

রাগ: ছায়ানট
তাল: দাদরা
রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): 1332
রচনাকাল (খৃষ্টাব্দ): 1925

Your fleeting shadow I had vowed for many a day to capture

Your fleeting shadow I had vowed for many a day to capture,

Today my song finally binds us to each other.

You are elusive, an ephemeral touch lingering like the play of clouds across blue sky,

I hear your anklets tinkle in harmony with my tune today,

And my song finally binds us to each other.

As the breeze whispers words into the ears of unhurried hours,

Their perfume lingers in the wake of secret trysts.

Today my song joins in the great harmony of Nature and season,

As we resonate to the rhythm of life,

And at last my song binds us to each other.

Raga: Chchaya Nat
Tal: Dadra
Written in the year 1332(Bongabdo)
1925 A.D.

The poet was sixty four years old at the time. This is one of the greatest of his romantic songs.

মোর সন্ধ্যায় তুমি সুন্দরবেশে এসেছ/You have graced my evening with all your beauty

মোর সন্ধ্যায় তুমি সুন্দরবেশে এসেছ,
তোমায় করি গো নমস্কার।
মোর অন্ধকারের অন্তরে তুমি হেসেছ,
তোমায় করি গো নমস্কার।
এই নম্র নীরব সৌম্য গভীর আকাশে
তোমায় করি গো নমস্কার।
এই শান্ত সুধীর তন্দ্রানিবিড় বাতাসে
তোমায় করি গো নমস্কার।
এই ক্লান্ত ধরার শ্যামলাঞ্চল-আসনে
তোমায় করি গো নমস্কার।
এই স্তব্ধ তারার মৌনমন্ত্রভাষণে
তোমায় করি গো নমস্কার।
এই কর্ম-অন্তে নিভৃত পান্থশালাতে
তোমায় করি গো নমস্কার।
এই গন্ধগহন-সন্ধ্যাকুসুম-মালাতে
তোমায় করি গো নমস্কার॥

You have graced my evening with all your beauty,
For this, I bow my head to you.
You have lit up my darkness with your benevolent smile,
For this, I must acknowledge you.
In the gentle silence of your serene skies, you surround me,
For this, I am forever in your thrall.
With this tranquil, unhurried, sleep kissed breeze, you soothe me,
For this, I thank you.
In the green embrace of this weary earthly existence, you give me respite,
For this, I must embrace you.
In the prayers and the silence of a million stars, you bring hope,
For this, I am blessed to have you.
In the solitude of this restful abode, you give me peace,
For this, I am grateful.
In the perfumed offering of the evening flowers,
For this, I must offer myself up to you.

স্বপ্নে আমার মনে হল কখন ঘা দিলে আমার দ্বারে, হায়/I felt as though you came to my door while I lay dreaming

স্বপ্নে আমার মনে হল কখন ঘা দিলে আমার দ্বারে, হায়।
আমি জাগি নাই জাগি নাই গো,
তুমি মিলালে অন্ধকার, হায়॥
অচেতন মনো-মাঝে তখন রিমিঝিমি ধ্বনি বাজে,
কাঁপিল বনের ছায়া ঝিল্লিরঝঙ্কারে।
আমি জাগি নাই জাগি নাই গো, নদী বহিল বনের পারে॥
পথিক এল দুই প্রহরে পথের আহ্বান আনি ঘরে।
শিয়রে নীরব বীণা বেজেছিল কি জানি না–
জাগি নাই জাগি নাই গো,
ঘিরেছিল বনগন্ধ ঘুমের চারি ধারে॥

Swapne amar mone holo kokhon gha diley amaro dware, hai
Ami jagi nai jagi nai go,
Tumi milaley andhokaare, hai.
Achetono mono-majhe tokhon rimijhimi dhwoni baaje,
Knapilo bonero chaya jhillijhonkare
Ami jagi nai jagi nai go, nodi bohilo bonero paare.
Pothik elo dui prohore pother ahwan aani ghore
Shiyore neerob bina bejechilo ki jani na jani na –
Jagi nai jagi nai go,
Phirechilo bonogondho ghumero chari dhare.

I felt as though you came to my door while I lay dreaming
I felt as though you came to my door while I lay dreaming, calling on me to rise
I was sunk in such sleep, why oh why?
Alas, you disappeared, fading into the darkness.
In the unknowing depths of my mind, you raised a sweet harmony
My existence responded as do the shadows of the forest to the incessant hum of life
I stayed blissfully asleep, even as a river ran through the forest.
The visitor came in the middle of the night, bringing the call of the road to me
I know not whether the silent instrument rang out an answer
I was sunk in such sleep, why oh why?
The flowers of the forest perfumed my sleep with such fragrance
As you came to my door while I lay oblivious and dreaming.

This song was composed in 1939

Follow the link to hear Debabrata Biswas sing

আকাশ আমায় ভরল আলোয়, আকাশ আমি ভরব গানে/Your skies have filled me with the light divine,

আকাশ আমায় ভরল আলোয়,   আকাশ আমি ভরব গানে।
সুরের  আবীর  হানব হাওয়ায়,   নাচের আবীর হাওয়ায় হানে॥
ওরে পলাশ, ওরে পলাশ,
রাঙা রঙের শিখায় শিখায় দিকে দিকে আগুন জ্বলাস–
আমার মনের রাগ রাগিণী রাঙা হল রঙিন তানে॥
দখিন-হাওয়ায় কুসুমবনের বুকের কাঁপন থামে না যে।
নীল আকাশে সোনার আলোয় কচি পাতার নূপুর বাজে।
ওরে শিরীষ, ওরে শিরীষ,
মৃদু হাসির অন্তরালে গন্ধজালে শূন্য ঘিরিস–
তোমার গন্ধ আমার কন্ঠে আমার হৃদয় টেনে আনে॥

Akaash  amay bhorlo aloy, akaash  ami bhorbo gaane

Shurer abeer haanbo haoway, nacher abeer haoway haane.

Orey Polash,  orey Polash,

Ranga ronger shikhay shikhay dikey dikey agun jwalash –

Amar moner rag ragini ranga holo rongeen taane.

Dokhin haoway kushumboner buker knapon thamey na je.

Neel akashey shonar  aloy kochi paatar nupuur baaje.

Orey Shireesh, orey Shireesh.

Mridu hashir ontoraale gondhojwale  shuunyo ghirish –

Tomar gondho amar konthe amar hridoy tene aaney

Your skies have filled me with the light divine

Your skies have filled me with the light divine, I celebrate this with my song

I will cast my tunes to the winds and watch them dance along

Oh lovely Palash, your red flowers

Send flames of crimson to set the world alight

My heart is filled with the beauty of that song so bright.

The South Wind makes the flowers quiver in joyous response

Golden sunlight and blue sky in green leaves creates a sweet nuance

Oh sweet Shirish, your soft flower

Blooms like a shy smile that perfumes the bower –

Your fragrance draws song from within my soul to my lips

To celebrate the light divine.

Follow  the links to  hear Purba Daam, one of the foremost exponents of Rabindrasangeet sing :

http://www.youtube.com/watch?v=J7pEYTh1FWI

বুঝেছি কি বুঝি নাই বা সে তর্কে কাজ নাই/What Have I Understood?

I have been absent from  this  blog for a while…my parents who were with me, just went back to India and I was in a rather fragile state. However, He restores better than anything else…and He has…

বুঝেছি কি বুঝি নাই বা সে তর্কে  কাজ নাই,
         ভালো আমার লেগেছে যে রইল সেই কথাই॥
       ভোরের আলোয় নয়ন ভ’রে  নিত্যকে পাই নূতন করে,
                 কাহার মুখে চাই॥
         প্রতিদিনের কাজের পথে করতে আনাগোনা
         কানে আমার লেগেছে গান, করেছে আন্‌মনা।
         হৃদয়ে মোর কখন জানি  পড়ল পায়ের চিহ্নখানি
                 চেয়ে দেখি তাই॥

Bujhechi ki bujhi nai shey torkey kaj nai,

Bhalo amaar legeche je roilo shei kathai.

Bhorer aloy noyon bhorey nityoke pai nuton korey,

Kahaar mukhe chai?

Proti diner kaajer pothe kortey aanagona

Kaane amar legeche gaan, koreche anmona.

Hridoye mor kokhon  jani porlo payer chinhokhani

Cheye dekhi tai.

Follow the links to enjoy:

Rama Mondal:http://www.youtube.com/watch?v=DWR_m_VplfY

What Have I Understood?

Little does it matter what I have understood, let us not debate that

I have liked what I have seen, let that be the final word.

Each dawn brings a new light that renews my sight daily,

Whose face is this, I ask?

Each day, as I carry on the daily task of living

Your songs sweeten my soul, making me forget life mundane

When did your footfall resound in my soul again?

I can only watch, all else forgotten

নয়ন তোমারে পায় না দেখিতে, রয়েছ নয়নে নয়নে/My eyes cannot see you, yet you remain contained within my vision

নয়ন তোমারে পায় না দেখিতে, রয়েছ নয়নে নয়নে।
হৃদয় তোমারে পায় না জানিতে, হৃদয়ে রয়েছ গোপনে॥
বাসনার বশে মন অবিরত    ধায় দশ দিশে পাগলের মতো,
স্থির-আঁখি তুমি মরমে সতত জাগিছ শয়নে স্বপনে॥
সবাই ছেড়েছে, নাই যার কেহ,    তুমি আছ তার আছে তব স্নেহ–
নিরাশ্রয় জন, পথ যার গেহ, সেও আছে তব ভবনে।
তুমি ছাড়া কেহ সাথি নাই আর,   সমুখে অনন্ত জীবনবিস্তার–
কালপারাবার করিতেছ পার কেহ নাহি জানে কেমনে॥
জানি শুধু তুমি আছ তাই আছি,   তুমি প্রাণময় তাই আমি বাঁচি,
যত পাই তোমায় আরো তত যাচি, যত জানি তত জানি নে।
জানি আমি তোমায় পাব নিরন্তর    লোকলোকান্তরে যুগযুগান্তর–
তুমি আর আমি মাঝে কেহ নাই, কোনো বাধা নাই ভুবনে॥

My eyes cannot see you, yet you remain contained within my vision.

My heart cannot know you, yet unseen you remain enclosed within my soul.

Driven by my desire, my insensate mind continually seeks you wherever it can,

Steady, unmoved, you reside within my heart, in sleep and in my dreams.

When everyone has abandoned me, and there is not another to call my own

I still have you, as I have the blessing of your compassion –

The one who has no shelter, the road their only home, you give them your protection too.

When you are the only one abiding with me and life seems to stretches endless ahead –

You steer me across this sea of time, no one knows how.

This I know to be true, I exist because you do, and your life force sustains me,

The more I receive, the more I crave thee, the more I know you, the less I know thee.

I know I will receive your bounty endless, in life and death, through the ages –

You and I , no one separates us, there are no obstacles to our union in the world any more

Follow the link and listen to Vikram Singh Khangura:

http://www.youtube.com/watch?v=wBkS4t3uJpA